A Rickshaw Puller Paragraph বাংলা অর্থসহ (PDF)

A Rickshaw Puller

The man who earns his livelihood by pulling rickshaw is called a rickshaw puller. He is, so to speak, a poor day labourer. Generally he is seen in the street. He carries passengers and goods from one place to another on payment. He hires a rickshaw from the owner on a daily basis.There are a few who pull their own rickshaws. A rickshaw puller is basically very poor. He can hardly afford to live in a good house. So, he lives in the slúm to minimize his living cost. Rickshaw puller works from dawn to midnight, but his income is so meagre. He maintains his family with his meagre income. As a result, he has to lead a miserable life. A rickshaw puller usually depends on his daily income to maintain his family. He has no other source of income. Moreover, due to ignorance, he fails to keep his family size small. He maintains a large family with his limited income. In inclement weather, he can hardly pull his rickshaw. He also cannot pull his rickshaw when he falls sick, The day he fails to pull his rickshaw, he has no income that day. In these cases, he suffers most. Sometimes, he along with the members of his family have to starve. Moreover, a rickshaw puller has to work very hard ignoring the severe heat of the sun or rain. The work of a rickshaw puller is very risky ín a busy town where numerous buses, trucks and cars run all day long. He has to ride his rickshaw very carefully all the time. Very often rickshaw pullers are not well paid by the passengers. Sometimes they also bargain with the passengers and even misbehave with them. But generally they behave very gently with the passengers. Thus, We see that the life of a rickshaw puller is very miserable. In case of learning too little, a rickshaw puller talks tall about national politics. 

একটি রিকশা চালক অনুচ্ছেদ

যে মানুষ রিকশা চালিয়ে জীবিকা নির্বাহ করে তাকে বলা হয় রিকশাচালক। তাই বলতে গেলে তিনি একজন দরিদ্র দিনমজুর। সাধারণত তাকে রাস্তায় দেখা যায়। তিনি টাকা দিয়ে যাত্রী ও মালামাল এক জায়গা থেকে অন্য জায়গায় নিয়ে যান। তিনি প্রতিদিন মালিকের কাছ থেকে একটি রিকশা ভাড়া নেন। কয়েকজন আছেন যারা নিজের রিকশা চালান। একজন রিকশাচালক মূলত খুবই দরিদ্র। ভালো বাড়িতে থাকার সামর্থ্য তার নেই। তাই, সে তার জীবনযাত্রার খরচ কমাতে বস্তিতে থাকে। রিকশাচালক ভোর থেকে মধ্যরাত পর্যন্ত কাজ করলেও তার আয় খুবই কম। নিজের সামান্য আয় দিয়ে সংসার চালান। ফলে তাকে দুর্বিষহ জীবনযাপন করতে হয়। একজন রিকশাচালক সাধারণত তার প্রতিদিনের আয়ের উপর নির্ভর করে তার সংসার চালাতে। তার আর কোনো আয়ের উৎস নেই। তাছাড়া অজ্ঞতার কারণে সে তার পরিবারের আকার ছোট রাখতে ব্যর্থ হয়। তিনি তার সীমিত আয় দিয়ে একটি বড় পরিবার বজায় রাখেন। প্রতিকূল আবহাওয়ায় সে খুব কমই তার রিকশা টানতে পারে। অসুস্থ হয়ে পড়লে সে তার রিকশাও টানতে পারে না, যেদিন সে তার রিকশা টানতে ব্যর্থ হয়, সেদিন তার কোন আয় নেই। এসব ক্ষেত্রে তিনি সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হন। অনেক সময় তাকে পরিবারের সদস্যসহ অনাহারে থাকতে হয়। তাছাড়া একজন রিকশাচালককে প্রচন্ড রোদ বা বৃষ্টি উপেক্ষা করে অনেক পরিশ্রম করতে হয়। একটি ব্যস্ত শহরে রিকশাচালকের কাজ খুবই ঝুঁকিপূর্ণ যেখানে সারাদিন অসংখ্য বাস, ট্রাক ও গাড়ি চলে। তাকে সব সময় খুব সাবধানে রিকশা চালাতে হয়। অনেক সময় রিকশাচালকরা যাত্রীদের কাছ থেকে ভালো বেতন পান না। অনেক সময় তারা যাত্রীদের সাথে দর কষাকষি করে এমনকি তাদের সাথে দুর্ব্যবহারও করে। তবে সাধারণত তারা যাত্রীদের সাথে খুব ভদ্র আচরণ করে। এইভাবে, আমরা দেখি যে একজন রিকশাচালকের জীবন খুবই দুর্বিষহ। খুব কম শেখার ক্ষেত্রে, একজন রিকশাচালক জাতীয় রাজনীতি সম্পর্কে লম্বা কথা বলে।

Leave a Comment